বাংলার রায় ২০২১
রাজ্য বিভাগে ফিরে যান

ধর্নায় মমতা, সমর্থনে সরব স্ট্যালিন এবং অখিলেশ

April 13, 2021 | < 1 min read

নির্বাচনী আদর্শ আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের(Mamata Banerjee) যাবতীয় নির্বাচনী প্রচার এর উপরে ২৪ ঘন্টা নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে আজ ধর্নায় বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী। নির্বাচন কমিশনের(ECI) এই সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে তৃণমূল কমিশনকে বিজেপির শরিক আখ্যা দিয়েছে।

এবার মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ালেন ডিএমকে প্রধান এম কে স্ট্যালিন(MK Stalin) এবং সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব(Akhilesh Yadav)। দুজনেই আজ মুখ্যমন্ত্রীর সমর্থনে টুইট করেন। নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা।

স্ট্যালিন লেখেন, ‘আমাদের গণতন্ত্রের ওপর বিশ্বাস অবাধ এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের ওপর নির্ভর করে। ভারতের নির্বাচন কমিশনকে নিশ্চিত করতে হবে যাতে সব দলের প্রার্থীরাই সমান এবং নিরপেক্ষ লড়াইয়ের ময়দান পান।’

অখিলেশ যাদব টুইটে লেখেন, ‘বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে বিজেপি (BJP) তাদের হতাশার প্রমাণ দিচ্ছে। তারা বুঝে গেছে যে তারা হারছে। সমাজবাদী পার্টিও প্রতীকীভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে এই ধর্নায় আছে। আশা করছি যারা ধর্মীয় উস্কানি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন তাদের সবার ওপরেই একই নিষেধাজ্ঞা জারি করবে।’

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং বিজেপি প্রার্থী রাহুল সিনহা শীতলকুচির ঘটনা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। সেনাদের ক্লিনচিট দিতে গিয়ে একজন বলেছেন, ‘বাড়াবাড়ি করলে জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে।’ অন্যজন বলেছেন, ‘৪ জন কেন, আট জনকে মারা উচিৎ ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর।’ তৃণমূল, বিজেপির এই দুই নেতার বিরুদ্ধে কমিশনে অভিযোগ জানালেও, কমিশনের তরফ থেকে এখনও কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#Kolkata, #Mamata Banerjee, #Akhilesh Yadav, #Dharna, #Mk stalin

আরো দেখুন