বাংলার রায় ২০২১
বিনোদন বিভাগে ফিরে যান

বাংলাকে নিয়ে মিথ্যাচার, সাসপেন্ড হল কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট

May 4, 2021 | < 1 min read

সাময়িক ভাবে বন্ধ রাখা হল অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের (Kangana Ranaut) টুইটার অ্যাকাউন্ট। টুইটারের নিয়মবিধি লঙ্ঘন করে পোস্ট করায় এই পদক্ষেপ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ২০২১-এ পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের (West Bengal Assembly Election 2021) ফলাফল পরবর্তী হিংসা নিয়ে একাধিক টুইট করেছিলেন তিনি। এমনকি তৃণমূল শাসিত বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি করেন বিজেপি সমর্থক কঙ্গনা। কয়েকটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, সাময়িক ভাবে নয়, পাকাপাকি ভাবে বন্ধ করা হয়েছে অভিনেত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট।

নির্বাচনে বিজেপি-র হারের পর একাধিক টুইট ভেসে উঠেছিল কঙ্গনার দেওয়ালে। প্রত্যেকটি টুইট যে তাঁর পছন্দের দলকে সমর্থন করে লেখা, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। নির্দিষ্ট একটি টুইটে পশ্চিমবঙ্গকে কাশ্মীরের সঙ্গেও তুলনা করেন অভিনেত্রী। তাঁর দাবি, যে সব জায়গায় বিজেপি জয়ী হয়েছে, সেখানে কোনও রকম হিংসামূলক কর্মকলাপ দেখা যায়নি। তবে বাংলায় তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরেই শুরু হয়েছে হত্যালীলা। ‘#বেঙ্গলইজবার্নিং’ জাতীয় হ্যাশটাগও ব্যবহার করেছিলেন অভিনেত্রী। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও কটাক্ষ করতে পিছপা হননি অভিনেত্রী। তাঁকে রাবণের সঙ্গে তুলনা করেও টুইট করেন কঙ্গনা। লিখেছিলেন, ‘খলনায়ক হতে গেলে পরাক্রমী রাবণের মতো হন। ঠিক যেমন মমতা দিদি’।

এতদিন যে কোনও বিষয়েই নিজের মতামত টুইটের আকারে তুলে ধরতেন অভিনেত্রী। তার জন্য বিতর্কও হয়েছে বিস্তর। একাধিক বার শিরোনামেও উঠে এসেছেন কঙ্গনা। তবে আপাতত টুইটারে মন কি বাত বলার রাস্তা বন্ধ হল অভিনেত্রীর।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#Kangana Ranaut, #West Bengal Assembly Election 2021, #Bollywood Actress

আরো দেখুন