পেটপুজো বিভাগে ফিরে যান

জেনে নিন কীভাবে বানাবেন মহাষ্টমীর মহাভোগ

October 13, 2021 | 2 min read

ভোগের খিচুড়ি
উপকরণ:  গোবিন্দভোগ চাল ২৫০ গ্ৰাম, সোনামুগের ডাল ২০০ গ্রাম, গোটা জিরে, শুকনো লঙ্কা ও তেজপাতা ফোড়নের জন্য, আদাবাটা ২ চামচ, জিরে গুঁড়ো ২ চামচ, ধনে গুঁড়ো ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো ও লঙ্কা গুঁড়ো আন্দাজ মতো, নুন ও চিনি স্বাদ অনুযায়ী, সর্ষের তেল ও ঘি প্রয়োজন মতো, গরমমশলা গুঁড়ো অল্প, কড়াইশুঁটি ছাড়ানো ১ কাপ, চেরা কাঁচা লঙ্কা ২টো।
প্রণালী: সোনামুগের ডাল ভেজে নিন হালকা লাল করে। তারপর ডাল ধুয়ে রাখুন। অন্যদিকে গোবিন্দভোগ চাল ধুয়ে জল ঝরিয়ে নিন। কড়াইতে তেল দিয়ে ফোড়ন দিন। সুগন্ধ বেরলে আদা বাটা ও জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, হলুদ ও লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে কষিয়ে নিন। তারপর ভেজে রাখা ডাল ও চাল মিশিয়ে কড়াইতে দিন। এরপর কড়াইশুঁটি দিয়ে ২-৩ মিনিট নাড়াচাড়া করে জল দিন। চাপা দিয়ে ঢিমে আঁচে খিচুড়ি রান্না করুন। খেয়াল রাখবেন ডাল যেন গলে না যায়। নামানোর আগে ঘি ও গরমমশলা গুঁড়ো দিয়ে নামাতে হবে।

লাবড়া
উপকরণ: পুঁই  ও পালং শাক, বেগুন, কুমড়ো, ঝিঙে, আলু, কালো জিরে সব কাটা সব্জি মিলিয়ে ১ বাটি, হলুদ গুঁড়ো ও লঙ্কা গুঁড়ো ১ চা চামচ, সর্ষের তেল ২ টেবিল চামচ, নুন ও চিনি স্বাদ মতো, ভাজা বড়ি কয়েকটা।
প্রণালী: কড়াইতে সর্ষের তেল দিয়ে প্রথমে বড়ি ভেজে তুলে নিতে হবে। তারপর কালো জিরে ও কাঁচা লঙ্কা ফোড়ন দিতে হবে। এরপর পুঁই শাক ও পালং শাক বাদে সমস্ত সব্জি দিয়ে ভাজা ভাজা করে নিতে হবে। সব শেষে কেটে রাখা শাক ও ডাঁটা দিন, এরপর নুন দিয়ে ঢিমে আঁচে রান্না  করুন। জল ছাড়লে এবং শাক সব্জি নরম হলে হলুদ গুঁড়ো ও লঙ্কা গুঁড়ো দিন। এবার ভাজা বড়ি দিন। স্বাদমতো চিনি দিয়ে কাঁচা তেল এক চামচ ছড়িয়ে দিন। লাবড়া গা মাখা হলে নামাতে হবে। তবে এই রান্নাতে জল দেওয়া যাবে না।

আলুর দম
উপকরণ : আলু ১ কেজি, আদা ২৫ গ্ৰাম, গোটা জিরে, গোটা ধনে, মৌরি ১ চা চামচ করে, চারমগজ বাটা ১ টেবিল চামচ, কাজুবাদাম ১ টেবিল চামচ, গরমমশলা অল্প, হিং সামান্য, হলুদ গুঁড়ো ও কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো ১ চা চামচ করে, টক দই ১ টেবিল চামচ, সাদা তেল ১ টেবিল চামচ, তেজপাতা ১টা, শুকনো লঙ্কা ১টা, ধনেপাতা অল্প।
প্রণালী : আলু দু’টুকরো করে নিতে হবে। কড়াইতে সাদা তেল দিয়ে জিরে তেজপাতা ও শুকনো লঙ্কা ফোড়ন দিন। তারপর হিং দিন। তাতে আলু দিয়ে ভাজুন। অন্যদিকে সমস্ত মশলা ও আদা একসঙ্গে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তাতে বাটা মশলাও যোগ করতে হবে। আলুতে মশলার এই পেস্ট ও নুন দিয়ে কষাতে হবে। সঙ্গে হলুদ গুঁড়ো ও লঙ্কা গুঁড়ো এবং চিনি দিতে হবে। কষিয়ে নিয়ে গরমমশলা বাটা ও টক দই ফেটিয়ে দিতে হবে। আলু সেদ্ধ হলে ঘি ও ধনেপাতা কুচি দিয়ে নামাতে হবে।

পায়েস
উপকরণ:  দুধ ২ লিটার, গোবিন্দভোগ চাল ৫০ গ্ৰাম, ঘি পরিমাণ মতো, গুড়ের বাতাসা ও চিনি মিলিয়ে ৪ কাপ, ছোট এলাচ গুঁড়ো অল্প।
প্রণালী:  এক চামচ ঘিতে কাজুবাদাম ও কিশমিশ ভেজে নিন। এরপর বাকি ঘিতে গোবিন্দভোগ চালটা একটু নাড়াচাড়া করে নিন। দুধ ঘন করে নিন। তাতে গোবিন্দভোগ চালটা দিয়ে দিন। একটু ফুটলে কাজুবাদাম ও কিশমিশ দিয়ে দিতে হবে। সঙ্গে এলাচ গুঁড়োও দেবেন। পায়েসের চাল যখন সেদ্ধ হয়ে যাবে তখন বাতাসা ও চিনি দিয়ে নাড়াচাড়া করে গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে। পুরো বাতাসা ও চিনি গলে গেলে তা হাতার সাহায্যে নেড়ে পায়েসের সঙ্গে মিশিয়ে দিতে হবে। 

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#mahashtami, #bhoger khichuri

আরো দেখুন