প্রযুক্তি বিভাগে ফিরে যান

মহিলাদের নিরাপত্তা বিষয়ক ১০টি অ্যাপ্লিকেশন

March 8, 2020 | 2 min read

মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ ক্রমশ বেড়েই চলেছে। আনা হয়েছে নানা আইন কানুন। তবুও সুরক্ষিত নন মহিলারা। মহিলাদের পাশে থাকতে এবং তাদের অভয় প্রদান করতে এসেছে কিছু অ্যাপ। 

আসুন জেনে নিই মহিলা নিরাপত্তায় সেরা ১০টি অ্যাপের সম্বন্ধে যা প্লেস্টোর ও আইটিউন্সে সহজেই মিলবে

১. আইওয়াচ এসওএস ফর উইমেন – এই অ্যাপে ব্যবহারকারীর আশপাশের অডিও এবং ভিডিও গ্রহণ করে সংশ্লিষ্ট নম্বরে অ্যালার্ট মেসেজ সহ পাঠানো হয়। লোকেশনের বিষয়ে সঠিক হওয়ার কারণে জনপ্রিয় এই অ্যাপ। সঠিক জায়গায় পৌঁছে ব্যবহারকারী আই অ্যাম সেফ বটন টিপে নিজের লোকেশন জানাতে পারবে।  

২. স্পটএনসেভ ফিল সিকিওর – আগে নির্ধারিত নম্বরগুলিতে ব্যবহারকারীর লোকেশন পাঠানো হবে প্রতি দু মিনিটে। ব্যবহারকারীর কাছে মোবাইল না থাকলে, সে রিস্ট ব্যান্ডও ব্যবহার করতে পারবে। এটি ব্লুটুথের মাধ্যমেও কাজ করে। 

৩. আইগো সেফলি – এই অ্যাপে সেভ থাকা নম্বরগুলিতে সতর্কতামূলক মেসেজের পাশাপাশি ইমেলেও চলে যাবে ব্যবহারকারীর লোকেশন। যতক্ষণ না সিক্রেট কোড দিয়ে অ্যালার্ম বন্ধ করা হচ্ছে, ততক্ষণ মেসেজ পাঠাতে থাকে। এছাড়া তিরিশ সেকেন্ডের একটি অডিও ক্লিপ পাঠায় এই অ্যাপ। এই অ্যাপ চালু করতে হেডফোন খুলতে হবে বা, জাস্ট ফোনটি ঝাঁকাতে হবে।

৪. স্মার্ট ২৪X৭ – প্যানিক বটন টিপে পুলিশকে ফোন করা যায়। এছাড়া আগে সেট করা নম্বরগুলিতেও যোগাযোগ করা যাবে। জিপিআরএস কাজ না করলে এসএমএসের মাধ্যমে লোকেশন পাঠানো হবে। এছাড়া ট্র্যাক, কাস্টমার কেয়ার সব আছে এই অ্যাপে। এছাড়া, অডিও ভিডিও রেকর্ড করা যায়।

৫. বি সেফ – এই অ্যাপে থাকছে অ্যালার্ম যা বাছাই করা নম্বরে সঠিক লোকেশন ও অডিও-ভিডিও পাঠায়। এছাড়া আরেকটি ফিচার আছে ফলো মি, যার মাধ্যমে জিপিএস ট্র্যাক করা হয় যতক্ষণ না ঘটনাস্থলে পৌঁছনো যাচ্ছে। এখানে ফেক কল ফিচারও আছে, যাতে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি থেকে বাঁচা যায়। এছাড়াও আছে টাইমার অ্যালার্ম।     

৬. শেক টু সেফটি – এখান থেকে আপতকালীন মেসেজ ছাড়াও ফোন করা যায়। অন অফ সুইচ চারবার টিপলে বা, ফোন ঝাঁকালেই ফোন করা যায়। এই অ্যাপ ইন্টারনেট ছাড়াও চলে, এমনকি স্ক্রীন লক থাকা অবস্থাতেও কাজ করে। ফোন চুরি হলে বা, দুর্ঘটনা ঘটলে এই অ্যাপ খুবই সাহায্য করে। 

৭. ট্র্যাকি – এই অ্যাপে সব রিয়েল টাইম তথ্য পাওয়া যায়। লোকেশন, ব্যাটারি, সিগনাল, গতিবেগ। এছাড়াও, কন্টাক্টদের সঙ্গে চ্যাট করা যায়। সঠিক নম্বর নথিভুক্ত করা হয় ওটিপি এবং সিম সিরিয়াল নম্বর দিয়ে।

৮. মাই সেফটি প্ল্যান – রাস্তায় আটকে পড়লে, এই অ্যাপ সবথেকে সহজ ও নিরাপদ রাস্তা বাতলে দেবে। এর মাধ্যমে পরিবার পরিজনকে আমন্ত্রণ জানানো যায় আপনার গতিপথ অনুসরণ করতে। নিরাপত্তা যাচাই করা হয় পাবলিক ট্রান্সপোর্ট, দৃশ্যমানতা ইত্যাদি নানাদিক যাচাই করে।  

৯. সিটিজেন কপ – এই অ্যাপে জনসাধারণ তাঁর এলাকায় কোনও বেআইনি কাজ নথিভুক্ত করতে পারে। খোয়া যাওয়া কিছুর নথিভুক্ত করাও সম্ভব। ই-লক্ষণরেখার মাধ্যমে এই অ্যাপ মহিলাদের নিরাপদ স্থানের নির্দেশ দেয় এবং লাইভ ট্র্যাকিং, এমার্জেন্সি কল, এসওএস অ্যালার্টেরও সুবিধা আছে।   

১০.চিল্লা অ্যাপ – কোনও মহিলা বিপদে পড়লে কোনও বটন টিপতে অক্ষম হলে চিৎকার করে এই অ্যাপ চালু করতে পারবে। চালু হলে এই অ্যাপ ওই মহিলার পরিবারকে সতর্কতাবার্তা পৌঁছে দেবে। এছাড়া অন অফ সুইচ পাঁচবার টিপেও এই অ্যাপ চালু করা যায়।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#citizen cop, #Safety apps, #eyewatch sos for women, #igosafely, #smart24*7, #be safe, #women safety

আরো দেখুন