দেশ বিভাগে ফিরে যান

২১ দিন দেশজুড়ে লকডাউন, তবু রয়ে গেল প্রশ্ন

March 24, 2020 | < 1 min read

করোনা সংক্রমণ এড়াতে বড়সড় পদক্ষেপ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মঙ্গলবার রাত ১২টা থেকে অর্থাৎ ২৫শে মার্চ থেকে দেশজুড়ে ২১ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণা করলেন তিনি। পাশাপাশি স্বাস্থ্যখাতে ১৫ হাজার কোটি টাকার অনুদানের কথাও ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

করোনা মহামারি মোকাবিলার একমাত্র উপায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন এই সময় নিজের ঘরে বন্দি থাকুন। এর থেকে ভাল উপায় আর নেই। সংক্রমণ রুখতে এটাই একমাত্র পন্থা। সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রীর।

গত ২ দিনে দেশের অনেকাংশ জায়গায় লকডাউন করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে রাজ্য সরকারগুলির লকডাউনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী। করোনা ঠেকাতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে রাত ১২টা থেকে দেশজুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউনের ঘোষণা করেন তিনি। এবার দেশের সমস্ত রাজ্য, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে লকডাউন করা হচ্ছে।

কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণায় প্রশ্নও তুলছেন অনেকেই। এই যে ২১ দিন লকডাউন চলবে, তখন গরিব, দিন আনা, দিন খাওয়া মানুষগুলির রোজগারের কি হবে? প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় ছিল না কোনও সংস্থান। অনেকে প্রশ্ন তুলছেন একদিনে রাষ্ট্রপতি ভবন সংস্কারে সরকার যেখানে ২০,০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে, সেখানে করোনা মহামারির জন্য মাত্র ১৫,০০০ কোটি কেন?

প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতায় ছিল আনাজপাতি, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে ধোঁয়াশাও। তিনি বলেন, জরুরি পরিষেবা মজুত থাকবে। কিন্তু সরবরাহের ব্যবস্থা সম্পর্কে কিছুই জানাননি। অনেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশ্ন করছেন, এই সিদ্ধান্ত নিতে এত সময় লাগলো কেন? করোনাকে মহামারি ঘোষণা করা হয়েছে সপ্তাহ দুয়েক আগে। এতদিন সরকার পদক্ষেপ নিল না কেন?

কেউ কেউ বলছেন, মধ্য প্রদেশে সরকার গঠনের জন্যই কি এই সিদ্ধান্ত পিছিয়ে দেওয়া হল? উত্তর দেবে ভবিষ্যৎ।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#coronavirusinindia, #CoronaOutbreak, #Lockdown, #Coronavirus

আরো দেখুন