রাজ্য বিভাগে ফিরে যান

দলের সব হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন শান্তনু ঠাকুর, অস্বস্তিতে বঙ্গ বিজেপি

January 3, 2022 | 2 min read

অস্বস্তি বাড়িয়ে রাজ্য বিজেপির (BJP) সব গ্রুপ ছাড়লেন শান্তনু ঠাকুর (Shantanu Thakur)। বঙ্গ বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লে কেন্দ্রীয় জাহাজ প্রতিমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, মতুয়াদের (Matua) আর প্রয়োজন নেই বর্তমান বিজেপি নেতৃত্বের। মন্ত্রিত্ব ছাড়বেন কিনা পরে জানাবেন বলে জানালেন বনগাঁর (Bongaon) বিজেপির সাংসদ। এ ব্যাপারে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি বিজেপি নেতৃত্বের।

মতুয়া ক্ষোভ সামাল দিতে কার্যত হিমশিম খাচ্ছে বিজেপি। এমন পরিস্থিতিতে শান্তনুর হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ তাদের দুশ্চিন্তা আরও বাড়াল। এক বা দুই নয়, শআন্তনু রাজ্য বিজেপি-র সমস্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপই ছেড়েছেন বলে জানা গিয়েছে। রাজ্য বিজেপি-র নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভও উগরে দিয়েছেন তিনি। 

এ নিয়ে বনগাঁর সাংসদের সঙ্গে যোগাযোগ করে এবিপি আনন্দ। ক্যামেরার সামনে মুখ খুলতে রাজি না হলেও, শান্তনু জানান, মতুয়া ভোটে ভর করেই বিধানসভা নির্বাচনে ভোট বাড়িয়েছে বিজেপি। কিন্তু এখন আর গেরুয়া শিবিরের রাজ্য নেতৃত্বের মতুয়াদের প্রয়োজন নেই। মতুয়াদেরও প্রয়োজন নেই বিজেপি-কে। তবে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেও বিজেপি-র সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করবেন কি না, অথবা কেন্দ্রের মন্ত্রিত্ব ছাড়বেন কি না, তা নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত জানাবেন বলে জানিয়েছেন ঠাকুর পরিবারের সদস্য শান্তনু। 

মতুয়া মন জয় করতে ২০২১-এর ঢের আগে থেকেই চেষ্টা-চরিত্র চালাচ্ছিল বিজেপি। তার জন্য কখনও বড় মা-র কাছে আশীর্বাদ নিতে ছুটে যেতে দেখা গিয়েছে নরেন্দ্র মোদিকে। বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলাদেশের ওড়াকান্দিতেও মতুয়া ধামে ছুটে গিয়েছিলেন তিনি। তার ফলও মিলেছে হাতেনাতে। বনগাঁ, সহ রানাঘাটে শাসকদল তৃণমূলকে সরিয়ে লাভবান হয়েছে তারা। 

কিন্তু রাজ্য বিজেপি-তে সাম্প্রতিক রদবদলের পর থেকেই মতুয়া প্রতিনিধিদের সঙ্গে বিরোধ বেঁধেছে দলীয় নেতৃত্বের। দলের সাংগঠনিক ক্ষেত্রে তাঁদের গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেন মতুয়া সম্প্রদায়ের বিধায়ক-নেতারা। তার জেরে শান্তনুর ভাই সুব্রত ঠাকুর-সহ বেশ কয়েক জন সম্প্রতি বিজেপি-র হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ করেন। 

সেই সময় শান্তনু জানিয়েছিলেন, এ নিয়ে বিজেপি-র সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে কথা বলবেন তিনি। দলে মতুয়া প্রতিনিধিদের গুরুত্ব দেওয়ার বিষয়ে কথা বলবেন। তার পর এক মাসও পেরোয়নি, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, বিজেপি-র সাংসদ তথা সারা ভারত মতুয়া মহাসঙ্ঘের সভাধিপতি শান্তনু নিজেই বিজেপি-র হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন।  তাতে তাঁর পরবর্তী রাজনৈতিক পদক্ষেপ নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে।

তৃণমূল (TMC) ছেড়েই এক সময় বিজেপি-তে গিয়েছিলেন শান্তনু এবং তাঁর সহযোগীরা। ঘাসফুলে তাঁদের ফেরানো নিয়ে তৃণমূল নেতৃত্ব যদিও কোনও মন্তব্য করেননি। তবে ঠাকুর পরিবারের সদস্য তথা বনগাঁয় তৃণমূলের নেত্রী মমতাবালা ঠাকুরকে (Mamatabala Thakur) সম্প্রতি শান্তনুদের প্রতি নরম অবস্থান নিতে দেখা যায়। শান্তনুদের ‘ঘর ওয়াপসি’র সম্ভাবনা জানতে চাইলে তিনি জানান, তাঁর আপত্তি নেই। তবে দলনেত্র্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই (Mamata Banerjee) এ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#Santanu Thakur, #Whatsapp Group, #bjp

আরো দেখুন