দক্ষিণবঙ্গ বিভাগে ফিরে যান

আগামী মাসে দীঘা সফরে মুখ্যমন্ত্রী, একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস করবেন মমতা

April 21, 2022 | 2 min read

আগামী মে মাসে পূর্ব মেদিনীপুর সফরে আসছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তাজপুর (Tajpur) বন্দরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পাশাপাশি নয়াচরে একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস করার কথা রয়েছে তাঁর। বুধবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার একটি অনুষ্ঠান থেকে এমনটাই ইঙ্গিত দেন রাজ্যের মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরি (Akhil Giri)।

এর আগে ইয়াস ঝড়ে ক্ষয়ক্ষতির রিভিউ মিটিং (Review Meeting) করতে দিঘায় (Digha) এসেছিলেন মমতা। এরপর ফের আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে আসার কথা রয়েছে তাঁর। আর যাকে কেন্দ্র করে প্রশাসনিক মহলে ইতিমধ্যে তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর আগমনের কথা শুনে উচ্ছসিত এবং আশায় বুক বাঁধছে দিঘাবাসী।

তাজপুর বন্দরের পরিকল্পনা অনুযায়ী, তাজপুরে সমুদ্রের তীরে ১২৫ একর জমিতে বন্দর গড়ে উঠবে। সেখান থেকে চার কিলোমিটার দূরে বন্দর-সংযুক্ত শিল্প গড়ার জন্য আরও এক হাজার একর জমি নির্মাতা সংস্থাকে রাজ্যের তরফে দেওয়া হবে। প্রস্তাবিত বন্দরটি পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা ও ছত্তিসগড়ের খনি অঞ্চলগুলির খুব কাছে গড়ে উঠবে।

মুখ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছেন এই প্রকল্পে রাজ্য সরকার ৪,২০০ কোটি টাকা মতো লগ্নি করবে। সব মিলিয়ে তাজপুর বন্দর প্রকল্পে প্রায় ১৫,০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ হবে। কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে ২৫ হাজারের বেশি।

এর পাশাপাশি নয়াচরে মৎস্য হাব, ট্যুরিজম সেন্টার সংক্রান্ত একাধিক প্রকল্প, দিঘার নতুন করে সৌন্দর্য্যায়নের কাজ সহ একাধিক প্রকল্প উদ্বোধনের কথা রয়েছে। ইয়াস ঝড়ের পর দিঘার সমুদ্র সৈকত সংলগ্ন বিস্তীর্ণ রাস্তায় প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল। সেগুলি মেরামতের কাজ চলছে।

এপ্রিল মাসের শেষ অর্ধে কলকাতায় বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলন চলছে। সেখান থেকে বিভিন্ন শিল্প উদ্যোগীদের প্রকল্পের ঘোষণা করার কথা রয়েছে। তাজপুরের বন্দর বিশেষ আকর্ষণ হিসাবে রয়েছে এর মধ্যে।

প্রসঙ্গত, প্রথমে কেন্দ্রের সঙ্গে যৌথ ভাবে প্রস্তাবিত বন্দরটি গড়ে তোলার কথা হলেও দিল্লির কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া না পেয়ে রাজ্য সরকার তা নিজেরাই গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ওয়েস্ট বেঙ্গল মেরিটাইম বোর্ড পিপিপি মডেলে ওই বন্দর নির্মাণের জন্য আগ্রহী সংস্থাগুলির কাছ থেকে ইচ্ছাপত্র আহ্বান করেছে। সূত্রের খবর, আদানি গোষ্ঠী, জেএসডব্লিউ ইনফ্রাস্ট্রাকচার, এসার পোর্টস, ডিপি ওয়ার্ল্ড, পোর্ট অফ সিঙ্গাপুরের মতো সংস্থা তাজপুরে গভীর সমুদ্র বন্দর গড়ে তোলার জন্য আগ্রহ দেখিয়েছে। গত নভেম্বরে আগ্রহী সংস্থাগুলির সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল রাজ্য সরকার।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#tmc, #Digha, #Didi, #West Bengal, #Mamata Banerjee

আরো দেখুন