উত্তরবঙ্গ বিভাগে ফিরে যান

মালবাজারের দুর্ঘটনায় শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী-মুখ্যমন্ত্রীর, আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা

October 6, 2022 | 2 min read

বিসর্জনে বিষাদের আবহাওয়া নেমে এসেছে জলপাইগুড়ির মালবাজারে। বুধবার রাতে প্রথমে দু’জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত উদ্ধারকার্যে বেড়েছে মৃতের সংখ্যা। জলপাইগুড়ির এই ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই কঠিন সময়ে মৃতের পরিবারদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাই। মাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে ১৩ জনের। এখনও পর্যন্ত ৭০ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। মমতা আরও বলেন, মৃতদের পরিবারপিছু ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য করা হবে। আহতদের ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।

মালবাজারের ঘটনায় শোকপ্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকেও টুইট করা হয়। টুইটে লেখা হয়, “জলপাইগুড়িতে প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় দুর্ঘটনায় আমি ক্ষুব্ধ। দুর্ঘটনায় যাঁদের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের পরিবারের প্রতি গভীর শোকপ্রকাশ করছি।” বৃহস্পতিবার সকালে ফের টুইট করে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করা হয়। প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিল থেকে নিহতদের পরিবারপিছু ২ লক্ষ টাকা এবং জখমদের চিকিৎসা খাতে ৫০ হাজার টাকা আর্থিক সাহায্য ঘোষণা করা হয়েছে।

নদীর পাড়ে থাকা প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছিলেন, বুধবার সন্ধ্যায় দুর্গাপ্রতিমার ভাসান হচ্ছিল মাল নদীতে (Jalpaiguri Mal River)। সেইসময়েই আচমকা বিপর্যয়টি ঘটে। কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই নদীর জলে ভেসে যান বহু মানুষ। মাঝ নদীতে গিয়ে আটকে পড়ে গাড়িও। খবর পেয়েই তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকল বাহিনী এবং পুলিশ। আটকে পড়া মানুষদের উদ্ধার করতে সেইসময় জেসিবি নামায় প্রশাসন।

প্রশাসনের তরফে প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী মৃত আটজন হলেন – তপন অধিকারী (৭২), শুভাশিস রাহা (৬৩), রুমুর সাহা (৪২), বিভা দেবী (২৮), সুস্মিতা পোদ্দার (২২), স্বর্ণদেবী অধিকারী (২০), ঊর্মি সাহা (১৩), অংশ পণ্ডিত (৮)। বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এখনও মাল নদীতে উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তবে লাগাতার বৃষ্টির জেরে উদ্ধারকাজ মাঝে মাঝেই বাধা পাচ্ছে। বিপদগ্রস্তদের সুবিধায় দু’টি হেল্পলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে। নম্বর দু’টি হল – ০৩৫৬১২৩০৭৮০ এবং ৯০৭৩৯৩৬৮১৫।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#Narendra Modi, #jalpaiguri, #Malbazar, #Mal River, #Mamata Banerjee

আরো দেখুন