রাজ্য বিভাগে ফিরে যান

অবাঙালি এলাকায় অভূতপূর্ব সাড়া, ভোজপুরিতে কথা বলে ছক্কা হাঁকালেন কীর্তি!

May 5, 2024 | < 1 min read

অবাঙালি এলাকায় অভূতপূর্ব সাড়া, ভোজপুরিতে কথা বলে ছক্কা হাঁকালেন কীর্তি!

নিউজ ডেস্ক, দৃষ্টিভঙ্গি: ‘মা, তোমাদের ভাই এসেছে। দ্বারডাঙায় বাড়ি। তোমাদের ছেড়ে যাব না। ভাইকে আশীর্বাদ করবে তো?’ খাটালপাড়া এলাকায় একদল অবাঙালি গৃহবধূর সাথে ভোজপুরি ভাষায় কথা বলে বাজিমাত করলেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী। সেই সঙ্গে তাঁদের সাথে কথা বলে আস্থা অর্জনও করলেন তিনি। তীব্র দাবদাহ উপেক্ষা করে এভাবেই শনিবার দুর্গাপুরের ১নম্বর ওয়ার্ডের বিজুপাড়া চষে বেড়ালেন কীর্তি আজাদ।

এদিন ভোটপ্রচারে বেড়িয়ে সকালে বিজুপাড়া এলাকার বাদ্যকরপাড়া চণ্ডী মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করেন কীর্তি আজাদ (Kirti Azad)। তাঁর গায়ে ছিল নামাবলি। তারপর হনুমান মন্দিরে যান তিনি। প্রচারে তাঁর সঙ্গী ছিলেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী প্রদীপ মজুমদার। এরপরে প্রার্থীর সাথে সেলফি তুলতে দেখা যায় অবাঙালি ঘরের বধূদের। বছর পঞ্চাশের প্রৌঢ়া এক ক্রিকেট ভক্ত কীর্তির কাছে অটোগ্রাফের আবদার করলে জিপ থামিয়ে সেই আবদারও পূরণ করেন তিনি। রোড শো চলাকালীন এক গৃহবধু হিন্দিতে জানান প্রত্যেক মহিলা মমতা দিদির দেওয়া লক্ষ্মীর ভাণ্ডার পাচ্ছেন। আগে তাদের পাড়া থেকেই বিজেপির মিটিং মিছিলে প্রচুর লোকজন যেত। এবার মোদীজির সভায় হাতে গোনা কয়েকজন গিয়েছে।

হুডখোলা জিপ বিজুপাড়া এলাকা ছেড়ে ধোবাঘাটের দিকে মোড় নিতেই মুসলিমপাড়ার ছেলেরা আবদার করেন যে তাদের পাড়ায় একবার যেতেই হবে। কীর্তি আজাদও মুখের ঘাম মুছে এগিয়ে যান। ধোবিঘাট, রঘুনাথপুর সর্বত্র প্রার্থীকে নিয়ে উচ্ছ্বাস দেখা যায়। উল্লেখ্য, দুর্গাপুর পুরসভারন ১৫টি ওয়ার্ডে আবাঙালি ভোটারদের প্রভাব রয়েছে। এখানে প্রায় ২০শতাংশ ভোটার আবাঙালি। এতদিন লোকসভায় একচেটিয়া ভোট বিজেপি পেলেও। এবার ব্যক্তিগত ক্যারিশ্মায় সেই ভোটে থাবা বসাচ্ছেন তৃণমূল প্রার্থী।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#campaign, #Kirti Azad, #Loksabha Election 2024, #Bardhaman-Durgapur, #West Bengal

আরো দেখুন