রাজ্য বিভাগে ফিরে যান

মোটা টাকা দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে বিজেপির হয়ে ভোটে কাজ করানো হলেও মেলেনি টাকা, দল ছাড়লেন নেতা

July 2, 2024 | 2 min read

মোটা টাকা দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে বিজেপির হয়ে ভোটে কাজ করানো হলেও মেলেনি টাকা, দল ছাড়লেন নেতা

নিউজ ডেস্ক, দৃষ্টিভঙ্গি: লোকসভা নির্বাচনের বিপর্যয়ের ‘ধাক্কা’ কাটার আগেই দলের ভিতরে নানা প্রশ্নে জেরবার হতে হচ্ছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বকে। সাংগঠনিক ত্রুটিবিচ্যুতি নিয়ে যেমন প্রশ্ন উঠছে, তেমনই অনেক নেতার আর্থিক স্বচ্ছতা নিয়েও উঠছে নানা অভিযোগ। এবার নতুন এক অভিযোগের সম্মুখিন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। মোটা টাকা দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে বিজেপির হয়ে ভোটে কাজ করানো হয়েছিল। ভোট মিটলেও সেই টাকা দেওয়ার নাম নেই!

রবিবার বিকেলের পর থেকেই মনশুকা-১ পঞ্চায়েত এলাকার আনন্দপুর গ্রামে একটি টোটোয় মাইক বেঁধে প্রচার করতে দেখা যায়। গ্রামের বাসিন্দারা জানান, পঞ্চায়েতের কোনও বিজ্ঞপ্তি ঘোষণা করা হচ্ছে ভেবে প্রথমদিকে কোনও গুরুত্ব দেননি। পরে দেখা যায়, ওই এলাকার বিজেপি নেতা রাহুল কারক কাগজে লেখা বয়ান হাতে নিয়ে পড়ে বিজেপি নেতাদের আক্রমণ করে চলেন। সঙ্গে ছিলেন তাঁর বাবা গোপাল কারকও। এভাবে গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় মাইকিং করা হয়।রাহুল আনন্দপুর গ্রামের বুথে বিজেপির পোলিং এজেন্ট হয়েছিলেন। কিন্তু ভোট শেষ হওয়ার পর বিজেপি নেতাদের আর পাত্তা নেই। কথামতো টাকাও দিচ্ছে না বলে অভিযোগ।

রাহুলের দাবি, বিজেপি নেতারা মোটা টাকার টোপ দিয়ে দলের কাজে লাগিয়েছিলেন। সেইমতো তাঁরা রাতদিন এক করে ভোটের কাজে পরিশ্রম করেছেন। কিন্তু ভোট মিটতেই আরও কারও দেখা নেই। মিলছে না টাকাও। রাহুল বলেন, বিজেপি প্রতারকের দল। উপর থেকে নিচুতলার নেতারা ধাপ্পাবাজ। সাধারণ মানুষের কাজের কাজ কিছু করে না। সেজন্য আমার মোহভঙ্গ হয়েছে। আমি তৃণমূলের হয়ে কাজ করতে চাই। যদিও ঘাটালের বিধায়ক বিজেপির শীতল কপাট বলেন, আমরা কোনও কর্মীকে টাকা দিয়ে দলের কাজ করাই না। রাহুল যে অভিযোগ করছেন তা ঠিক নয়। তবে আনন্দপুরে ওই বিজেপি নেতার কাণ্ড দেখে রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#campaign, #west bengal BJP, #politics, #miking, #West Bengal, #bjp

আরো দেখুন