বাংলার রায় ২০২১
কলকাতা বিভাগে ফিরে যান

এই ভোট বাংলার ইজ্জত বাঁচানোর ভোট: বারাসতে মমতা

April 13, 2021 | 4 min read

নির্বাচনী আদর্শ আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) যাবতীয় নির্বাচনী প্রচার এর উপরে ২৪ ঘন্টা নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল নির্বাচন কমিশন (Election Commission)। সেই নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার ঠিক পাঁচ মিনিট পরেই প্রচারে ঝাঁপালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উত্তর ২৪ পরগনার বারাসত এবং বিধাননগরে জনসভা মমতার। এর আগে, আজ সকালে মেয়ো রোডে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে ধর্নায় বসেছিলেন তিনি।

লাইভ আপডেট

৮.৪৭: খেলা হবে ১৭ তারিখ আসছে দিন, জোড়া ফুলে ভোট দিন

৮.৪৬: ঐক্যবদ্ধভাবে ভোট দিয়ে বলে কি ভুল আমি বলেছি? জাতি-ধর্ম-বর্ণ সম্প্রদায় নির্বিশেষে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে ভোট তৃণমূলকে। বাংলা কে বাঁচাতে হবে।

৮.৪৫: বাংলার মাটি শিক্ষা সভ্যতা সংস্কৃতির মাটি। বাংলা স্বাধীনতার মাটি মাটি সোনার মাটি। এই ফোনের মাটি কে বাঁচানোর দায়িত্ব আপনাদের। আমি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের মতো লড়ে যাব। আমায় হারাবার ক্ষমতা কারও নেই। যতক্ষণ আমার চলবে নিশ্বাস, যতক্ষণ থাকবে আপনাদের বিশ্বাস। আমি এক পয়সা মাইনে নি না। আমি রাজনীতিকে জনসভা মনে করি।

৮.৪৪: রেল, সেল, কয়লা, এয়ার ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক, বীমা সহ বিক্রি করে দিচ্ছে। গ্যাসের দাম কত? বলুন ভোটের সময় ক্যাশ না, বিনা পয়সায় গ্যাস চাই। গ্যাসের দাম ১০০০ টাকা করে? এদের মত মিথ্যাবাদী, অসৎ, কুৎসাকারী, দাঙ্গাবাজ, কুকথা বলার লোক কোথাও পাবেন না।

৮.৪৩: তৃণমূলকে ভোট দেবেন। জন্মলগ্ন থেকে আপনাদের সমর্থন আমি পেয়েছি।এবারের নির্বাচন বাংলার ইজ্জতের নির্বাচন, বাংলা মাকে বাঁচানোর নির্বাচন, গুন্ডাদের থেকে বাংলাকে বাঁচানোর নির্বাচন।

৮.৪১: সবার বাড়িতে বাড়িতে আর্সেনিকমুক্ত জল সরবরাহ করার কাজ চলছে। রাস্তাঘাট হয়েছে, ফ্লাইওভার হয়েছে। দমদম থেকে বারাসত পর্যন্ত মেট্রোরেল প্রকল্প আমি চালু করেছিলাম।

৮.৩৮: বিনা পয়সায় রেশন দুয়ারে দুয়ারে চাইলে তৃণমূলকে ভোট দিতে হবে। ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনার জন্য ১০ লক্ষ টাকা ক্রেডিট কার্ড করে দেবে সরকার। জামিনদার হবে সরকার। তারা নিজেদের পড়াশোনার খরচ নিজেরাই চালাবে। মা-বোনেরা সব সংসারের জন্য করেন। নিজের জন্য কিছুই রাখেন না। লক্ষ্মীর ভান্ডার তো মোদি কেড়ে নিয়েছে নোট বন্দি সময় থেকে। এবার আমাদের সরকার যদি আসলে মাসে মাসে হাত খরচা বাবদ ৫০০ থেকে হাজার টাকা সবাই পাবে, কোনও ভেদাভেদ নেই।

৮.৩৬: উদ্বাস্তুরা সবাই নাগরিক। আমি সব উদ্বাস্তু কলোনিকে স্বীকৃতি দিয়েছি। এমনকি কেন্দ্রীয় সরকারের জমিতে হলে কেউ উচ্ছেদ করতে পারবে না। অনুকুল ঠাকুর, ওঙ্কার ধাম, লোকনাথ বাবার মন্দির সংস্কারের জন্য আমরা টাকা দিয়েছি। ৪০০ কোটি টাকা দিয়ে তীর্থস্থান বাঁধিয়ে দিয়েছি।

৮.৩৪: একটা টেলি প্রম্পটার দেখে ভাষণ দেন। না দেখে একটা বাংলা লাইন বলতে পারবেন? সোনার বলতে পারে না বলে শুনার। বাংলা বলে না, বলে বঙ্গাল। যেন বাংলা হয়ে গেছে কাঙাল।

৮.৩৩: প্রতিটি নির্বাচনের দফায় উনি আসছেন সাথে সরকারি হেলিকপ্টার। কোটি কোটি টাকার মঞ্চ। যে টাকা ওরা খরচ করে তাতে এক লক্ষ তপশিলি মেয়ের বিয়ে হয়ে যেত। কেন উনি নির্বাচনের দিন এসে মিথ্যা কথা বলছেন? দরকার হলে নির্বাচনের দিন আমিও মিটিং করব না। প্রধানমন্ত্রী মানুষদের বিভ্রান্ত করছেন।

৮.৩২: উন্নয়নের জন্য ভোট দিন। গুজরাটে এত লোকের করোনা হয়েছে, গত একবছর কোথায় ছিলে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী? তোমাদের অপদার্থতার জন্যই তো করোনা বেড়েছে। 3 মাস আগে আমি বলেছিলাম যে আমি টাকা দিয়ে কিনে নেব কাটলো সবাই কে বিনা পয়সায় টিকা দেব। এটা ভোট ঘোষণার আগেই আমি লিখেছিলাম চিঠি। দিলেন না কেন? ঘরে বসে বসে শুধু ভাষণ?

৮.৩১: মমতা ব্যানার্জি পিকচার অফ পছন্দ করে না, আমিতো দোকানে গিয়ে চা বানিয়ে দি। এত মিথ্যাবাদী ! সবচেয়ে জঘন্য পার্টি।

৮.৩০: গিরীন্দ্রনাথ বর্মন আমাদের প্রার্থী তার মাথা ফাটিয়ে দিয়েছিল। সেটার থেকে নজরুল ঘুরিয়ে দিতেই বোধহয় ভোটের লাইনে সেই ছেলেকে মেরে ফেলা হলো। সমাজবিরোধীরা মেরেছে তাকে। আমি তো চাই ওই পরিবারের সাথে দেখা করতে। ওরে না এলে আমি কি করতে পারি?

৮.২৯: গুরুচাঁদ হরিচাঁদ ঠাকুরের বিশ্ববিদ্যালয় কে তৈরি করছে? বড়মাকে কে বঙ্গবিভূষণ দিয়েছে? ওখানকার রাস্তাঘাট উন্নয়ন কে করেছে? বর্ধমানে গিয়ে বলছে মমতা ব্যানার্জি নাকি মিহিদানা পছন্দ করে না। তুমি কি করে জানবে? তুমি মিহিদানা খেয়েছ কোনওদিন?

৮.২৭: অন্য সময় তোমার মতুয়াদের কথা মনে পড়ে না। নির্বাচনের সময় তুমি বাংলাদেশে যাচ্ছ। বড়ো মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব কে নিয়েছিল? চ্যালেঞ্জ করছি আমি যদি কিছু না করে থাকি আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব। তুমি মিথ্যে কথা বললে কান ধরে উঠবস করবে।

৮.২৫: মোদি আর অমিত সাহা বিজেপির সিন্ডিকেট। জলপাইগুড়ি তে গিয়ে বলছে মমতা ব্যানার্জি রাজবংশীদের হত্যাকারীদের কথা বলছে না। মমতা-ব্যানার্জি সবার কথা বলেছে। ৫ জনের নাম শহীদ বেদীতে লিখেছে। আমি মৃত্যু নিয়ে রাজনীতি করি না। দার্জিলিংয়ের দিয়ে বলছে আমরা এনআরসির কথা বলিনি। মমতা ব্যানার্জি মিথ্যা কথা বলছে। বিল এনেছে কি আনেনি? অসমের ১৪ লক্ষ লোকের নাম বাদ দিয়েছে কি দেয়নি? কে মিথ্যে বলছে? তুমি রাজবংশী দের খেপাচ্ছ আমার বিরুদ্ধে

৮.২৪: অমিত শাহ কে আর ফটো শপ করতে হচ্ছে। কিছু দালাল সংবাদ মাধ্যম আছে যারা বিজেপির কেনা। ওরা পারবে না কোনোদিন সত্যিটা লিখতে। একটা বাড়িতে গিয়ে বলছে ডোর টু ডোর প্রচার করছে, এটা প্রতারণা, ভাওতা।

৮.২১: তোমরা কোটি কোটি টাকা নিয়ে সব এজেন্সি নিয়ে নির্বাচনে নেমেছ। তা সত্ত্বেও তোমরা আমাকে এত ভয় পাচ্ছ কেন? বিজেপির টাকা আছে লোকলস্কর আছে গণতন্ত্রের যত এজেন্সি আছে তা সত্ত্বেও তোমরা হারাবে কারণ আমি স্ট্রিট ফাইটার। আমি মাটিতে থেকে লড়াই করি, ওপর থেকে নির্দেশ দিই না।

৮.২০: আমি গত একমাস ধরে পায়ে চোট নিয়মে প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত ছুটে বেড়াচ্ছি। মা বোনেরা আমাকে সাহস যোগাচ্ছে। মামুনের বাংলার সম্মান রক্ষার লড়াইয়ে ভূমিকা পালন করবে। আমার নতুন প্রজন্মের বিজেপি কে কেউ ভোট দেবে না আমি বিশ্বাস করি।

৮.১৮: বিজেপির রাঘববোয়াল থেকে চুনোপুটি সবার একটাই লক্ষ্য বাংলাকে কি করে দখল করা যায়। এই অশুভ প্রচেষ্টা চলছে।বাংলাদেশ গুজরাট করতে দেবো না আমাকে আঘাত করলে আমি প্রত্যাঘাত করি । আমি ঘরে ঢুকে যাওয়ার লোক নই।

৮.১৭: আমাকে ২৪ ঘণ্টার প্রচার করতে দেওয়া হল না। তাছাড়া পঞ্চম দফার প্রচার ৭২ ঘন্টা কমিয়ে দেওয়া হল। মানে মোট ৪ দিন প্রচার করতে পারব না। আমাকে আটকানোর প্রচেষ্টা চলছে ওদিকে বিজেপির নেতারা প্রচার করছে, এর বিচার আপনারা করবেন।

TwitterFacebookWhatsAppEmailShare

#barasat, #MamataBanerjee, #West Bengal Elections 2021

আরো দেখুন